36 C
Dhaka
রবিবার, জুলাই ১২, ২০২০

সন্তান নেশাগ্রস্ত হলে যা করেবেন

Must Read

মোদি ক্ষমতায় থাকাকালীন পাক-ভারত ম্যাচ সম্ভব নয়: আফ্রিদি

দিল্লীর মসনদে মোদি ক্ষমতাসীন থাকা অবস্থায় পাক-ভারত সিরিজ সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের আইকন ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি। ক্রিকেট পাকিস্তান...

‘মধ্যপ্রাচ্যে অশান্তির মূল কারণ এরদোগান’

 ইয়েমেনসহ মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিটি আঞ্চলিক সংঘাতে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের বিরুদ্ধে হস্তক্ষেপের অভিযোগ এনেছেন সৌদি আরবের বিশিষ্ট ইসলামিক স্কলার...

কর্পূরের ব্যবহারগুলি সম্পর্কে জানেন কি?

চোখ বন্ধ করেও কর্পূরের গন্ধ অনুভব করা যায়। সাধারণত খাবারের সুগন্ধ বাড়াতে কর্পূরের (ভোজ্য) ব্যবহার করা হয়। এটি আমরা...

মানসিক স্বাস্থ্য-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে আসক্ত সন্তানকে পথে ফিরিয়ে আনার উপায় সম্পর্কে জানা যায়।সন্তানকে ভালো মন্দ বোঝানো দায়িত্ব বাবা মায়ের। অনেক গবেষণা থেকে দেখা গেছে, সন্তানের প্রতি পিতামাতার আক্রমণাত্মক আচরণ তাকে নেশার দিকে ঠেলে দেয়।

এই সময় পেশাদার পরামর্শকের সাহায্য নেওয়া প্রথম ও প্রধান দায়িত্ব। একজন আসক্তি বিশেষজ্ঞ বা সাকোলজিস্ট’য়ের সঙ্গে পরামর্শ করে এই ধরনের সমস্যার সমাধান খোঁজা উচিত। তাছাড়া যতটা সম্ভব আসক্তি বিষয় নিয়ে পড়াশুনা করুন। যেমন- এর ফলে কী হয়, কীভাবে এর থেকে রক্ষা পাওয়া যায় ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে জানার চেষ্টা করুন।

আপনার সন্তানের কথা শুনুন। রাসায়নিক উপাদানের উপর নির্ভরশীলতা বাড়ার অন্যতম কারণ হল মানসিক চাপ। তাই সন্তানের উপর কখনও খুব বেশি চাপ সৃষ্টি করা ঠিক না। সত্যি বলতে আপনি কখনই আপনার সন্তানের হয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন না। তাই তার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগের মাধ্যমে তার মানসিক অবস্থা বোঝার চেষ্টা করুন এতে সে বিপথগামী হওয়া থেকে বিরত থাকবে।

সন্তানের যত্ন নেওয়া ও তাকে রক্ষা করা বাবা মায়ের একটি সহজাত প্রবৃত্তি। কিন্তু সব সময় সন্তানকে আগলে রাখলে সে জীবন সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ জ্ঞান অর্জন করতে পারবে না। তাই সন্তানের সঙ্গে ঠিক কী ধরনের আচরণ করতে হবে তা চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নেওয়া ভালো।এমন খারাপ পরিস্থিতিতে সন্তানের পাশে দাঁড়ানো অনেক সাহস ও ধৈর্য্যের ব্যাপার। এ সময় নিজের প্রতি যত্ন নিতে অবহেলা করা যাবে না। নিজের খাদ্যের প্রতি যত্নশীল হতে হবে ও অবসাদ দূর করার জন্য পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে। এই সময় হয়ত রাতে সহজে ঘুমাতে পারাটা বেশ কষ্টসাধ্য কিন্তু যতটা সম্ভব নিজের স্বাস্থ্যের প্রতি মনোযোগ দেওয়া উচিত।

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest News

মোদি ক্ষমতায় থাকাকালীন পাক-ভারত ম্যাচ সম্ভব নয়: আফ্রিদি

দিল্লীর মসনদে মোদি ক্ষমতাসীন থাকা অবস্থায় পাক-ভারত সিরিজ সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের আইকন ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি। ক্রিকেট পাকিস্তান...

‘মধ্যপ্রাচ্যে অশান্তির মূল কারণ এরদোগান’

 ইয়েমেনসহ মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিটি আঞ্চলিক সংঘাতে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের বিরুদ্ধে হস্তক্ষেপের অভিযোগ এনেছেন সৌদি আরবের বিশিষ্ট ইসলামিক স্কলার ও দেশটির জনপ্রিয় লেখক ড....

কর্পূরের ব্যবহারগুলি সম্পর্কে জানেন কি?

চোখ বন্ধ করেও কর্পূরের গন্ধ অনুভব করা যায়। সাধারণত খাবারের সুগন্ধ বাড়াতে কর্পূরের (ভোজ্য) ব্যবহার করা হয়। এটি আমরা প্রায় সবাই জানি। বাজারে দু’ ধরণের...

রেসিপি: ঝটপট মাশরুম ভাজা

ঝটপট তৈরি করা যায় এমন রেসিপি অনেকেই খুঁজে থাকেন কেননা ব্যাস্ততার জিবনে সময় করে রেসিপি করা অনেক কঠিন একটি কাজ বর্তমান সময়ে। ইদানিং সবার...

এবার আদিত্যর বিয়ের খবর দিলেন নেহা

জনপ্রিয় গায়িকা নেহা কাক্কর ও গায়ক-অভিনেতা আদিত্য নারায়ণের প্রেম ও বিয়ের গুঞ্জন নিয়ে অনেক জল ঘোলা হয়েছে। তবে শেষ পর্যন্ত জানা যায় এই গুঞ্জনের...
- Advertisement -

More Articles Like This

- Advertisement -